নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফর নিয়ে ডান বান সবার প্রতিবাদ

শেখ মুজিব জন্মশতবার্ষিকী: নরেন্দ্র মোদীর বাংলাদেশ সফর নিয়ে প্রতিবাদ, সরকার বলছে বিক্ষোভ মোকাবেলা করা হবে

বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী এবং সরকার-ঘোষিত মুজিব বর্ষ উপলক্ষে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ঢাকা সফরকে ঘিরে প্রতিবাদ বিক্ষোভ দানা বাঁধছে। দেশের রাজনৈতিক অঙ্গনের দুই মেরু, ডান এবং বাম উভয় দিক থেকে আপত্তি জানানো হচ্ছে।

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ বলছে, ভারতের মুসলমানদের উপর নির্যাতনের দায় ব্যক্তি নরেন্দ্র মোদীর ওপরে পরে, এবং সেজন্য তারা তাঁকে বাংলাদেশের সুবর্ণ জয়ন্তী বা মুজিব বর্ষ উপলক্ষে এই দেশে স্বাগত জানাবেন না।

একই সাথে, বাংলাদেশের বেশ কিছু বামপন্থী সংগঠন ভারতের প্রধানমন্ত্রীর বাংলাদেশ সফর নিয়ে জোর আপত্তি জানিয়ে বলছে, ‘শুধু একটা রাজনৈতিক দলকে খুশি করার’ জন্য নরেন্দ্র মোদীর বাংলাদেশ সফর তাদের কাছে কাম্য না।

তবে বাংলাদেশ সরকার এইসব প্রতিবাদকে মি. মোদীর সফরের প্রতি হুমকি হিসেবে দেখছে না। ঢাকায় একজন মন্ত্রী বলেছেন, মি. মোদীর সফরের সময় কোন রকম বিক্ষোভ আইনশৃঙ্খলা বাহিনী ‘জনগণকে সাথে নিয়ে মোকাবেলা করবে’।

‘মুসলমানদের রক্তে রঞ্জিত’

হেফাজতে ইসলামের নেতা আব্দুর রব ইউসুফি বলেন, ব্যক্তি নরেন্দ্র মোদীকে বার বার দেখা গেছে মুসলমানদের নির্যাতন করতে।

হেফাজতে ইসলামের নেতা আব্দুর রব ইউসুফি বলেন, ব্যক্তি নরেন্দ্র মোদীকে বার বার দেখা গেছে মুসলমানদের নির্যাতন করতে।

”এমন অবস্থায় আমাদের দেশে ৯০ শতাংশ সেখানে আমরা মুসলমান হিসেবে তাকে স্বাগত জানাতে পারি না” বলেন মি. ইউসুফি।

ইসলামপন্থী সংগঠনগুলো এর আগে ভারতে গরুর মাংস খাওয়ার অভিযোগে মানুষ পিটিয়ে মারা, এনআরসি, গুজরাটের দাঙ্গা এসব ইস্যু নিয়ে নরেন্দ্র মোদী বিরোধী মনোভাব দেখিয়ে আসছে।

বিভিন্ন ইসলামপন্থী সংগঠনগুলো বাংলাদেশে বড় ধরণের বিক্ষোভ করেছে এর আগে।

হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশের এই নেতা বলছেন তাদের দাবি উপেক্ষা করে যদি সরকার নরেন্দ্র মোদী সফর বাতিল না করে তাহলে পরবর্তীতে সংগঠনটি তাদের পরিকল্পনা জানাবে।

এদিকে বাংলাদেশের বেশ কিছু বাম সংগঠন ভারতের প্রধানমন্ত্রীর বাংলাদেশ সফর নিয়ে জোর আপত্তি জানাচ্ছে।

দুই দেশের রাজনৈতিক সম্পর্কের দুর্বল দিকগুলোকে ইঙ্গিত করে তারা বলছে সীমান্তে হত্যা, তিস্তা এবং ফেনী নদীর পানি বণ্টনসহ নানা ইস্যুতে ভারত বন্ধু-সুলভ আচরণ করেনি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *