সুষ্ঠু নির্বাচন হলে পালাবার দরজা খুঁজে পাবে না-ওবায়দুল কাদেরের ভাই

ফেনীর বহুল আলোচিত ফুলগাজী উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সভাপতি ও উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান একরামুল হক একরাম হত্যাকাণ্ডের পুনঃতদন্ত দাবি করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের ছোট ভাই আবদুল কাদের মির্জা।

তিনি নোয়াখালীর বসুরহাট পৌরসভার বর্তমান মেয়র এবং ১৬ জানুয়ারি অনুষ্ঠেয় নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী।
কাদের মির্জা বলেন, ‘২০১৪ সালে একরামুল হক একরামকে নিজ দলীয়রাই গুলি করে হত্যার পর নৃশংসভাবে পুড়িয়ে ফেলে। এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার না হওয়ায় জড়িতরা ধরাছোঁয়ার বাইরে থেকে যায়।’

সোমবার ছাত্রলীগের ৭৩তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বসুরহাট মুজিব চত্বরে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি ফেনী ও নোয়াখালীর কয়েকজন দলীয় নেতা ও তার ভাবির (ওবায়দুল কাদেরের সহধর্মিনী) সমালোচনা করেন।

তিনি বলেন, ‘কিছু নেতার আচরণে প্রতিদিনই আওয়ামী লীগের ভোট কমছে। অথচ চামচারা প্রচার করে তারা নাকি বৃহত্তর নোয়াখালীতে বিএনপির দুর্গ ভাংছে। এখন সুষ্ঠু নির্বাচন হলে তিন-চারজন ছাড়া বাকি এমপিরা পালাবার দরজাও খুঁজে পাবে না।’

তিনি আসন্ন বসুরহাট পৌর নির্বাচনে অবাধ ও শান্তিপূর্ণ ভোট গ্রহণের দাবি জানিয়ে বলেন, ‘ভোট ডাকাতি করে আমি মেয়র হতে চাই না। প্রয়োজনে নিজের ভোট নিজে পাবো তবুও শান্তিপূর্ণ নির্বাচন চাই।’

তিনি নিজ দলীয় নেতাদের বেপরোয়া চাঁদাবাজী, ঘুষবাণিজ্য ও সালিশ বাণিজ্যের তীব্র সমালোচনা করেন।

এসময় উপজেলা পর্যায়ের আওয়ামী লীগ, ছাত্রলীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ বক্তব্য রাখেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *