স্টুডেন্ট ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের সাবেক বর্তমানের মিলন মেলা

আগত সবার মুখেই প্রানখোলা হাসি। করোনার ভয়কে আশঙ্কা করেও প্রাণের টানে জড় হয়েছেন নিজেদের মিলন মেলায়। আগত সবায় ঢাকার অন্যতম বৃত্তি প্রকল্প প্রতিষ্ঠান দি-স্টুডেন্ট ওয়েলফেয়ার অ্যাসোসিয়েশনের সাবেক ও বর্তমান সদস্য।

গতবছর কোভিড-১৯ এর প্রভাবে মিলন-মেলার আয়োজন করেও বাস্তবায়ন করতে পারিনি প্রতিষ্ঠানটি। এবছর ৪ মে স্বাস্থ্য বিধি মেনে রাজধানীর একটি রেস্টুরেন্টে সাবেক ও বর্তমান কর্মকর্তাদের নিয়ে মিলন মেলায় আয়োজন করে।

রাজধানী ঢাকার অন্যতম বৃহত্তর বৃত্তিমূলক প্রতিষ্ঠানটি বিগত ১৪ বছর ধরে ঢাকা শহরে প্রায় ৮৯ টি স্কুলে বৃত্তি প্রদান করে আসছে। গতবছর স্বাধীনতা দিবস উপলক্ষে ১০টাকায় বাইসাইকেল শিরোনামের কুইজে, সংস্থাটি সর্বস্থরের শিক্ষার্থীদের কাছে জনপ্রিয়তা পেয়েছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সংস্থাটির প্রধান উপদেষ্টা ও স্টুডেন্ট ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশন বাংলাদেশের চেয়ারম্যান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সাবেক পরিচালক ও সাবেক প্রধান উপদেষ্টা। এছাড়াও উপস্থিত ছিলেন সাবেক বর্তমান বিভিন্ন পরিচালক, সদস্য সচিব ও নির্বাহী সদস্য বৃন্দ।

এসময় করোনা পরিস্থিতিকে অতিক্রম করে কিভাবে বৃত্তি পরিক্ষা সম্পন্ন করা যায় তা নিয়ে অভিভাবকদের সাথে পরামর্শ গ্রহন করে সংস্থাটি।
এরপর সারাবিশ্বে করোনা পরিস্থিতি থেকে মুক্তির জন্য দুআ পরিচালনার মাধ্যমে অনুষ্ঠানটি সমাপ্ত করাহয়।

অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন দি-স্টুডেন্ট ওয়েলফেয়ার এসোসিয়েশনের বর্তমান পরিচালক আব্দুল্লাহ আল-মারুফ। সংস্থাটির বৃত্তি পরীক্ষা সম্ভাব্য আগামী আগস্ট মাসে হবে বলে তিনি আশাবাদ ব্যাক্ত করেছেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *