মিরাজের প্রথম সেঞ্চুরি এবং মুস্তাফিজের দুর্দান্ত বোলিংয়ে চালকের আসনে বাংলাদেশ

মেহেদী হাসান মিরাজের ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি এবং মুস্তাফিজুর রহমানের দুর্দান্ত বোলিংয়ে দ্বিতীয় দিন শেষে চালকের আসনে বাংলাদেশ।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে চট্টগ্রামে সিরিজের প্রথম ওয়ানডে ম্যাচে দ্বিতীয় দিন শেষে ৩৫৫ রানে এগিয়ে রয়েছে বাংলাদেশ। এইদিন প্রথম ইনিংসে ব্যাট করতে নেমে শুরুতেইবাংলাদেশকে উইকেট এনে দেন মোস্তাফিজুর রহমান। দলীয় ২৪ রানের মধ্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজের দুটি উইকেট তুলে নেন তিনি।

এর আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে আজ দ্বিতীয় দিনে ক্যারিয়ার সেরা ইনিংস খেলেছিলেন বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দলের তরুণ অলরাউন্ডার মেহেদী হাসান মিরাজ। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে প্রথম টেস্ট ম্যাচে গতকাল চট্টগ্রামে প্রথম দিন শেষে ৫ উইকেট হারিয়ে ২৪২ রান সংগ্রহ করেছিল বাংলাদেশ।

আজ দ্বিতীয় দিনে ব্যাট করতে নেমে মেহেদী হাসান মিরাজের সেঞ্চুরিতে ৪৩০ রানে অলআউট হয়েছে বাংলাদেশ। আজ দ্বিতীয় দিনে ব্যাটিংয়ে নেমে ইনিংসে বড় করতে পারেননি লিটন দাস। মাত্র ৬ রান যোগ করেই ফিরে গেছেন লিটন দাস।

জোমেল ওয়ারিক্যানের অফ স্টাম্পের ওপর করা একটি বল ব্যাক ফুটে গিয়ে কাট করতে গিয়ে বোল্ড হয়েছেন তিনি। তাঁর সংগ্রহ ছিল ৩৮ রান। তবে অন্য প্রান্ত থেকে হাফ সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন সাকিব আল হাসান।

লিটন দাসের আউটের পর সাকিব আল হাসানের সাথে জুটি গড়েন মেহেদী হাসান মিরাজ। দলীয় ৩১৫ রানের মাথায় ৬৮ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন সাকিব আল হাসান। তবে এদিন বাংলাদেশের হয়ে দুর্দান্ত ব্যাটিং করেছেন মেহেদী হাসান মিরাজ।

তাইজুল ইসলাম এবং নাঈম হাসানকে সাথে নিয়ে সেঞ্চুরির পথে হাঁটতে থাকেন তিনি। দলীয় ৩৫৯ রানের মাথায় ১৮ রান করে তাইজুল ইসলাম আউট হলে নাঈম হাসানকে সাথে নিয়ে ৫৭ রানের পার্টনারশিপ গড়ে তোলেন মেহেদী হাসান মিরাজ।

দলীয় ৪১৬ রানের মাথায় ২৪ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন নাঈম হাসান। তবে অন্য প্রান্ত থেকে ক্যারিয়ারের প্রথম সেঞ্চুরি দেখা পেয়েছেন মেহেদী হাসান মিরাজ। ১০৩ রান করে রাকিম কর্নওয়ালের বলে প্যাভিলিয়নে ফেরেন মিরাজ।

এর আগে গতকাল দিনের শুরুতে টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ। ইনিংসের শুরুতে ২৩ রানের মাথায় ৯ রান করে প্যাভিলিয়নে ফেরেন ওপেনার ব্যাটসম্যান তামিম ইকবাল। কেমার রোচের বলে বোল্ড হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন তিনি।

এরপর ব্যাটিংয়ে নেমে সাদমান ইসলামের সাথে জুটি গড়েন নাজমুল হোসেন শান্ত। তবে ভুল বোঝাবুঝির কারণে দলীয় ৬৬ রানের মাথায় প্যাভিলিয়নে ফেরেন নাজমুল হোসেন শান্ত। ২৫ রান করে রান আউট হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন তিনি।

নাজমুল হোসেন শান্ত আউটের পর সাদমান ইসলামের সাথে ব্যাটিংয়ে নেমে জুটি গড়েন অধিনায়ক মমিনুল হক। তবে বেশি দূর এগোতে পারেননি মমিনুল হক। ২৬ রান করে জোমেল ওয়ারিকেনের প্রথম শিকার হয়ে প্যাভিলিয়নে ফেরেন তিনি।

তবে অন্য প্রান্ত থেকে ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় হাফ সেঞ্চুরি তুলে নেন সাদমান ইসলাম। দলীয় ১৩৪ রানের মাথায় ৫৯ রান করে এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়ে আউট হন সাদমান ইসলাম। ব্যাটিংয়ে নেমে সাকিব আল হাসানের সাথে ৫৯ রানের পার্টনারশিপ গড়ে তোলেন মুশফিকুর রহিম।

জোমেল ওয়ারিকেনের তৃতীয় শিকার হয়ে ৩৮ রান করেই প্যাভেলিয়নের পথ ধরেন মুশফিক। তবে দিনের শেষে দূর্দন্ত ব্যাটিং করে সাকিব আল হাসান এবং লিটন দাস। লিটন দাস ৩৪ এবং সাকিব আল হাসান ৩৯ রানে প্রথম দিন শেষ করেন।

বাংলাদেশ একাদশ: তামিম ইকবাল, সাদমান ইসলাম, নাজমুল হোসেন শান্ত, মমিনুল হক (অধিনায়ক), মুশফিকুর রহিম, সাকিব আল হাসান, লিটন দাস (উইকেটরক্ষক), মেহেদী হাসান মিরাজ, নাঈম হাসান, তাইজুল ইসলাম এবং মুস্তাফিজুর রহমান।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ একাদশ: ক্রেইগ ব্র্যাথওয়েট (অধিনায়ক), জন ক্যাম্পবেল, এনক্রুমাহ বোনার, জার্মেইন ব্ল্যাকউড, জসুয়া ডি সিলভা (উইকেটরক্ষক), শেন মোসলে, কাইল মায়ার্স, রাকিম কর্নওয়াল, জোমেল ওয়ারিকেন, কেমার রোচ এবং শ্যানন গ্যাব্রিয়েল।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *