নেতৃত্ব নিয়ে স্মিথকে হতাশার খবর দিল ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া

নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে দলে ফিরেছেন, আগের মতো পারফর্মও করছেন। স্টিভেন স্মিথকে কি আবারও অস্ট্রেলিয়ার নেতৃত্বে ফেরানো হবে? ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া হতাশার খবরই শোনাল সাবেক অধিনায়ককে। তাদের সাফ কথা, স্মিথই নয়, হাতে আরও অনেক অপশন আছে।

২০১৮ সালে বল টেম্পারিং কাণ্ডে জড়িয়ে নেতৃত্ব হারান স্মিথ। বাধ্য হয়েই বিকল্প ভাবতে হয় ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়াকে। টিম পেইন পান টেস্ট দলের দায়িত্ব।

পেইনের অধীনে শুরুতে ধুঁকলেও এখন মোটামুটি থিতু হয়েছে অস্ট্রেলিয়ার টেস্ট দল। তারপরও বাতাসে গুঞ্জন তো আছেই। স্মিথ যেহেতু ভালোভাবেই দলে ফিরেছেন, তিনি আবারও অধিনায়ক হতে পারেন।

এ বিষয়টি নিয়ে কি ভাবছে বোর্ড? ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়ার চেয়ারম্যান কার্ল এডিংস ’ক্রিকইনফো’র সঙ্গে আলাপে বলেন, ‘প্রথম কথা হলো, আমাদের দলে তিনজন ভালো অধিনায়ক আছে-মেগ, অ্যারন আর টিম। নতুন অনেকে নেতৃত্বের এই ধাপে উঠে আসছে। তাই এমনই নয় যে স্মিথতেই দায়িত্ব নিতে হবে, ভাবতে হবে সব কিছু নিয়েই।’

এডিংস যোগ করেন, ‘স্মিথ তরুণ একজন, যখন দায়িত্বে ছিল খুব ভালো নেতৃত্বও দিয়েছে। তবে পর্যায়ক্রমে অন্য কেউ আসলেও সেখানে একটা পরিকল্পনা থাকে। যদি বলেন আমরা শুধু পরবর্তী অধিনায়ক কে হবেন, সেই আলোচনা করতে বসেছি কি না? জবাবে বলব, না।’

পরের লাইনে যা বললেন, শুনে মনে হতে পারে স্মিথের আর নেতৃত্ব ফেরত পাওয়ার সম্ভাবনাই নেই। এডিংস বলেন, ‘আমার মনে হয়, দীর্ঘ সময় ধরেই আমরা অনেককে সহ-অধিনায়ককে দায়িত্ব দিয়ে আসছি। ম্যাথু ওয়েড ইতিমধ্যের দলের সহ-অধিনায়ক। আমরা সেটাও দেখব। অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটের ভবিষ্যৎ অধিনায়ক নিয়ে ভাবলে আমাদের এসবও দেখতে হবে।’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *