তারা আমাকে মানসিক যন্ত্রণা দিচ্ছিলোঃ আমির

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানিয়েছেন পাকিস্তানের ফাস্ট বোলার মোহাম্মদ আমির৷ স্বদেশীয় সাংবাদিক শোয়েব জাটকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে আমির জানিয়েছেন, পাক টিম ম্যানেজমেন্টের থেকে যে, মানসিক যন্ত্রণা তিনি পেয়ে চলেছেন, তাঁর পক্ষে আর খেলা চালিয়ে যাওয়া সম্ভব নয়৷

আমির গত বছর জুনে খেলার ধকল জনিত ইস্যুতে টেস্ট ক্রিকেটকে বিদায় জানান৷ এখন মনে করছেন যে, এই ম্যানেজমেন্টে থেকে তিনি আর আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে এগিয়ে যেতে পারবেন না৷ নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে চলতি সীমিত ওভারের সিরিজে আমির দলে সুগোগ পাননি৷ তারপরেই এই সিদ্ধান্ত নিলেন তিনি৷

আমির বলেন, “লোকেরা আমার বয়স এবং অবসর (টেস্টে) নিয়ে কথা বলে। তারা বুঝতে পারে না আমি ৫ বছর আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলিনি (নিষেধাজ্ঞার কারণে)। আপনি যদি আপনার গাড়ি এক সপ্তাহ না চালান, তাহলে আপনি তেল পরিবর্তন করেও আগের মত গতিতে চালাতে পারবেন না”।

“ম্যানেজমেন্ট (পাকিস্তান) আমাকে সবসময় টেনশনে রাখছিল,মানসিক অশান্তি দিচ্ছিলো। তারা বলছে আমার উপর অনেক খরচ করছে। তারা বুঝতে পারছে না আমি ৫ বছর ক্রিকেট থেকে বাইরে ছিলাম,জেল খেটেছি। জেল বের হওয়ার পর আমার উপর শুধুমাত্র শেঠি সাহেব এবং শহীদ আফ্রিদি ভরসা রেখেছিল। এই দুইজনের প্রতি আমি চিরকৃতজ্ঞ।”

“অন্যরা তো আমার সাথে খেলতেই চায়নি। কে না চায় নিজের দেশে হয়ে খেলতে। আমি তো অবশ্যই নিজের দেশের হয়ে খেলতে চাই। লোকেরা বলে আমি শুধু লিগ খেলতে চাই। আমি ফর্মেই এসেছি লিগ থেকে। বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) ভালো খেলেই তো দলে জায়গা পেলাম। আমি তো সাদা বলে পাকিস্তানের জন্য সর্বাত্নক চেষ্টা করছিলাম।”

“কিন্তু ১,২ মাস আমাকে নিয়ে কড়া কথা বলছিল ম্যানেজমেন্ট। স্বাধীনভাবে খেলার সুযোগ পাচ্ছিলাম না। মনে হচ্ছিল আমি কারাগারেই আছি। তারা বলে আমি তাদের ভবিষ্যতের পরিকল্পনায় নেই। এসব ভেবে আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এক দুই দিন পরে আমি পাকিস্তানে গিয়ে পরিবারের সাথে সময় কাটাবো। তখন আপনাদের বিস্তারিত জানাবো (অবসর প্রসঙ্গে)। এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তি দিয়ে জানাব।”– যোগ করেন আমির।

সূত্রঃ স্পোর্টসজোন২৪

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *