ডাকসুর সাবেক সমাজসেবা সম্পাদকের ২ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর

রাজধানীর মতিঝিলে ছাত্র অধিকার পরিষদের সাথে পুলিশের সংঘর্ষের ঘটনায় দায়ের করা এক মামলায় গ্রেপ্তার হওয়া ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) সমাজসেবা সম্পাদক ও ছাত্র অধিকার পরিষদের ঢাবি শাখার সভাপতি আখতার হোসেনের দু’দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত।

আজ বুধবার (১৪ এপ্রিল) তাকে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালতে হাজির করে পুলিশ। এ সময় আসামি ছিনিয়ে নেয়ার অভিযোগে শাহবাগ থানায় করা মামলার সুষ্ঠু তদন্তের জন্য তাকে ৭ দিনের রিমান্ডে নিতে আবেদন করে পুলিশ। পরে ঢাকা মহানগর হাকিম মামুনুর রশীদের আদালতে দু’দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

আখতারের আইনজীবী শিশির মনির জানান, আজ আখতার হোসেনকে আদালতে হাজির করা হয়। তদন্ত কর্মকর্তা ৭ দিনের পুলিশ রিমান্ডের আবেদন করেন। আখতারের রিমান্ড বাতিল পূর্বক জামিনের প্রার্থনা করি। আদালত জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে ২ দিনের পুলিশ রিমান্ড মঞ্জুর করেন। ২৫ মার্চ শাহবাগ থানায় দায়েরকৃত একটি মামলায় আখতারকে গ্রেপ্তার দেখানো হয়েছে বলেও তিনি জানান।

এর আগে মঙ্গলবার (১৩ এপ্রিল) রাতে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুষদের সামনে থেকে থেকে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়। মামলার অভিযোগ থেকে জানা যায়, ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের বিরোধিতা করে গত ২৫ মার্চ মতিঝিল থানায় ছাত্র ও যুব অধিকার পরিষদ একটি মিছিল বের করে। সেই মিছিলে পুলিশের সঙ্গে ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে। এ সময় আবুল কালাম আজাদ নামে এক ব্যক্তিকে আটক করে পুলিশ। আটক ওই ব্যক্তিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজে পুলিশ চিকিৎসা দিতে নিয়ে গেলে ছাত্র ও যুব অধিকার পরিষদের কর্মীরা তাকে পুলিশের কাছ থেকে ছিনিয়ে নেয়।

এ ঘটনায় ওইদিনই শাহবাগ থানায় একটি মামলা করেন পল্টন মডেল থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) রায়হান কবির। মামলায় ছাত্র অধিকার পরিষদের ভারপ্রাপ্ত আহ্বায়ক রাশেদ খান, যুগ্ম আহ্বায়ক ফারুক হাসান, ঢাবি শাখার সাবেক সভাপতি বিন ইয়ামিন মোল্লা, বর্তমান সভাপতি ও ডাকসুর সাবেক সমাজসেবা সম্পাদক আকতার হোসেন, ঢাবি শাখার সাধারণ সম্পাদক আকরাম হোসেন, কেন্দ্রীয় যুগ্ম আহ্বায়ক মশিউর রহমান, সোহরাব, যুব অধিকার পরিষদের আহ্বায়ক আতাউল্লাহসহ মোট ১৯ জনকে আসামি করা হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *