আবারো বিতর্কিত ফেসবুক পোস্ট নোবেলে বললেন, ফেইসবুক ‘হ্যাকড’

দেশের জনপ্রিয় সঙ্গীত তারকা জেমসকে ব্যঙ্গ করে একের পর এক পোস্ট আসছিল মাঈনুল আহসান নোবেলের ফেইসবুক পাতা ‘নোবেল ম্যান’ এ। তা নিয়ে সমালোচনার ঝড়ের মধ্যে দিন শেষে উঠতি এই গায়ক বললেন, তিনি হ্যাকিংয়ের শিকার হয়েছেন।

তবে নোবেল বলেছেন, তার পেইজটি পুরোপুরি বেহাত হয়নি, নিয়ন্ত্রণ তার হাতেও রয়েছে।

ভারতের একটি রিয়েলিটি শো থেকে আলোচনায় উঠে আসা নোবেলের ভেরিফায়েড ফেইসবুক পেইজে ঈদের আগের রাত থেকে একটির পর একটি বিতর্কিত পোস্ট দেখে অনেকের ভ্রূকটি ওঠে।

এর মধ্যে গায়ক জেমসকে (ফারুক মাহফুজ আনাম) হেয় করে বেশ কয়েকটি পোস্ট দেওয়া হয়। পোস্ট দেওয়া হয় গীতিকার-সুরকার ইথুন বাবুকে নিয়েও।

পোস্টগুলো দেখে নোবেলের সমালোচনার পাশাপাশি তিনি কি নিজে এগুলো লিখছেন, নাকি তার ফেইসবুক পেইজ হ্যাক হয়েছে, তা নিয়ে শুরু হয় জল্পনা।

এনিয়ে আলোচনার মধ্যে নোবেল শুক্রবার সন্ধ্যায় গ্লিটজকে বলেন, “আমার পেইজের অ্যাডমিন দুই জন; সেই সঙ্গে এডিটরসহ আছেন মোট ২৭ জন। … এটা একটু উপরের লেভেল থেকে হয়েছে (হ্যাক) বলে একটু ঝামেলা হয়েছে।”

সমস্যা সমাধানের বিষয়ে তিনি বলেন, “ইন্ডিয়াতে (ফেইসবুকের আঞ্চলিক দপ্তর) যোগাযোগ করা হচ্ছে। ইন্ডিয়াতে কাজ না হলে প্রয়োজনে সিলিকন ভ্যালি পর্যন্ত যাব। পেইজ আমরা উদ্ধার করব।

“স্ট্যাটাসগুলো আপাতত আছে, থাকুক। কোনো সমস্যা নাই। কিন্তু এটা আমরা উদ্ধার করব ইনশাল্লাহ।”

কখন থেকে পেইজটি বেহাত- এমন প্রশ্নের জবাবে নোবেল দাবি করেন, তার ফেইসবুক পেইজটি পুরোপুরি বেহাত হয়নি; নিয়ন্ত্রণ তার হাতেও আছে।

তাহলে পোস্টগুলো সরিয়ে নিচ্ছেন না কেন- জানতে চাইলে তিনি বলেন, “আমাকে থ্রেট দেওয়া হচ্ছে যে, স্ট্যাটাসগুলো ডিলিট করলে আরও আজেবাজে স্ট্যাটাস দেওয়া হবে। যে কারণে স্ট্যাটাসগুলো আমি ডিলিট করতেছি না। আমি আমার ফেইসবুক পেইজ সিকিউর করতে চাই।”

তবে নোবেলের দাবি নিয়ে তার ফেইসবুক পেইজেই সন্দেহের কথা জানিয়েছেন কেউ কেউ।

একজন লিখেছেন, “হ্যাক হয়নি যারা এটা ভাবছেন তারা ভুলের মধ্যে আছেন। কারণ যে কোনো পেইজের এডমিন রিমুভ করতে হলে এখন আগে তার কাছে নোটিফিকেশন যাবে এবং সে যদি না চায় তাকে কোনো ভাবেই পেইজ থেকে রিমুভ করতে পারবে না। নোবেল শুধু মাত্র নিজের মিউজিক ভিডিওর প্রচারণার জন্য এই সমস্ত লেইম মার্কা পোষ্ট করতেছে।সব শেষে পোষ্ট করে বলবে (আমার পেইজ হ্যাক হয়েছে।”

বিতর্কিত পোস্টের জন্য এর আগে গত বছর একবার নোবেলকে র‍্যাব কার্যালয়ে ডেকে নেওয়া হয়েছিল। তখন ক্ষমা চেয়ে তিনি বলেছিলেন, নিজের একটি গানের প্রচারের জন্য ওই কাজ করেছিলেন তিনি।

২০১৯ সালে ভারতের জি-বাংলা টিভির রিয়েলিটি শো ‘সা রে গা মা পা’তে অংশ নিয়ে বাংলাদেশের পাশাপাশি ভারতেও পরিচিতি পান নোবেল; প্রতিযোগিতায় তিনি তৃতীয় হয়েছিলেন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *